(880)-2-9111260

Blog

শিক্ষার আলো পাঠশালা, মানিকগঞ্জ

ঝড়ে পড়া পিতা-মাতাহীন অতি দরিদ্র ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য ব্যতিক্রমী শিক্ষার আলো পাঠশালা নামক সংগঠনটি গড়ে তুলছেনে সানী রহমান মিন্টু । পিতামাতাহীন, ঝড়ে পড়া ও অতিদরিদ্র ছাত্র ছাত্রীদের বিনামূল্যে পড়ানো হয় এবং তাদের সকলকে বিনামূল্যে শিক্ষা উপকরন সহ যাবতীয় খরচ বহন করে শিক্ষার আলো পাঠশালা। শিক্ষার আলো পাঠশালা-ও লক্ষ্য হলো ঝড়ে পড়া পিতা-মাতাহীন ও হত-দরিদ্র কোমলমতি শিক্ষার্থীরা যেন শিক্ষার আলো থেকে বঞ্চিত না হয় এবং অর্থের অভাবে কারো যেন লেখাপড়া বন্ধ না হয়ে যায়। এ সমস্ত শিক্ষার্থীর অভিভাবক সাধারণত অশিক্ষিত হওয়ার ফলে তারা তাদের সন্তানদের স্কুলের পড়াগুলো বাড়িতে বুঝিয়ে দিতে পারে না কিংবা অর্থের অভাবে কারো কাছে বাহিরে প্রাইভেট পড়াতে দিতে পারে না। সময় মত ঐ সকল শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার প্রয়োজনীয় সামগ্রীর (যেমন: খাতা, কলম ইত্যাদি) ব্যবস্থা করে দিতে পারে না। এই সব কারণে শিক্ষার্থীরা লেখাপড়া হতে অনেক পিছিয়ে পড়ে ও অমনোযোগী হয়; দেখা যায় একসময় তারা লেখাপড়া বন্ধ করে দেয়। আমার সংগঠনের মূল লক্ষ্য হলো ঐ সমস্ত কোমলমতি শিক্ষার্থীরা যেন শিক্ষার আলো থেকে ঝড়ে না পড়ে।

প্রতি বছর জানুয়ারী মাসে শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে ভর্তি ফরম বিতরণ করা হয়ে থাকে। সেখান থেকে যাচাই বাছাই করে ৬০ জন শিক্ষার্থীদের ভর্তি করা হয়। শিক্ষার্থীদের ২টি শিফটে ভাগ করে তাদের প্রতিদিন ভোর বেলায় (শুক্রবার সাপ্তাহিক ছুটি) বিনামূল্যে পড়ানো হয়। সকল শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার জন্য বিনামূল্যে খাতা ও কলম প্রদান করা হয়। প্রতিটি জাতীয় দিবস শিক্ষার্থীদের নিয়ে উদযাপন করা হয়। শিক্ষার্থীদের উদ্বুদ্ধ করার লক্ষ্যে বিভিন্ন ধরণের খেলাধুলার ব্যবস্থা করা হয় এবং তাদের পুরস্কার প্রদান করা হয়। এছাড়াও বিভিন্ন ধর্মীয় দিনে মেহেদী উৎসবের আয়োজন করা হয়। প্রতিদিন রাতে পাঠশালার শিক্ষার্থীদের বাড়িতে গিয়ে পড়ালেখার বিষয়ে তদারকি করা হয়।

শিক্ষার আলো পাঠশালায় প্রতিদিন যারা পড়তে আসে তারা সকলেই স্থানীয় বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী। এই সংগঠনের কারণে ঝড়ে পড়া কোমলমতি শিক্ষার্থীদের প্রাথমিক শিক্ষা থেকে ঝড়ে পড়া রোধ করছে। হত-দরিদ্র শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার প্রতি অতি আগ্রহ সৃষ্টি হয়েছে। শিক্ষার আলো পাঠশালার সকল শিক্ষার্থী বিভিন্ন পরীক্ষা ভাল ফলাফল অর্জন করছে এবং অত্র পাঠশালায় লেখাপড়া শেষ করে স্থানীয় বিভিন্ন স্বনামধন্য সরকারী/স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানে পড়াশোনা করছে। শিক্ষার্থীদের ভালো ফলাফল দেখে অভিভাবকগণ সন্তাদের প্রতি অধিক নজর দিচ্ছে এবং হত-দরিদ্র অভিভাবকগণ তাদের সন্তানদের নিয়ে অনেক বড় স্বপ্ন দেখছে।

শিক্ষার আলো পাঠশালা নামক সংগঠনটি শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে পড়াশোনার পাশাপাশি আরো বিভিন্ন সামাজিক উন্নয়নমূলক কার্যক্রম করে থাকে। যেমনঃ বিভিন্ন বিদ্যালয়ে গিয়ে ছাত্র-ছাত্রীদেরকে বাল্যবিবাহ, মাদকদ্রব্য ও বজ্রপাত সম্পর্কে সচেতন করা হয়। উল্লেখ্য যে, সংগঠনটি বজ্রপাত নিয়ে ২০১৫ সাল থেকে গণসচেতনতা মূলক কাজ করে থাক। ২০১৭ সালে ১০০০ তালগাছের বীজ রোপন করা হয়। পাখি রক্ষা কমিটি গঠন করে পাখির নিরাপদ আবাসস্থল গড়ে তোলার জন্য গাছে গাছে ৫০০টি মাটির হাড়ি বাধা হয়। ২০১৯ সাল শিক্ষার আলো পাঠশালা প্রায় ৫০০ তালগাছ রোপন করে। এছাড়াও বিভিন্ন বিদ্যালয়ে গিয়ে সচেতনতামূলক আলোচনা সভা করে। বাংলাদেশকে সবুজে রূপান্তরিত করার লক্ষ্য হিসাবে সংগঠনের নিজস্ব নার্সারী হতে বৃক্ষরোপন কর্মসূচী পালন করা হয়। ২০১৮ সালে শিক্ষার আলো পাঠশালা কাজের স্বীকৃতি সরূপ “জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড অর্জন করে।